Saturday , December 7 2019
Home / bangladesh / ভক্ত-সমর্থকদের প্রতি সাকিবের আহ্বান – bdnews24.com

ভক্ত-সমর্থকদের প্রতি সাকিবের আহ্বান – bdnews24.com



জুয়াড়ির প্রস্তাব সংশ্লিষ্টদের না জানানোয় এক বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে বাইরে থাকতে হবে সাকিবকে। আইসিসি নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেওয়ার পর থেকে ব্যাপক সমর্থন পেয়েছেন বাঁহাতি এই অলরাউন্ডার। এর পর দেশের প্রতিনিধিত্ব করার অর্থটা আরও ভালোভাবে অনুভব করতে পারছেন সাকিব।

“আমার এবং আমার পরিবারের খুব কঠিন সময়ে আপনাদের নিঃশর্ত সমর্থন ও ভালোবাসা আমাকে স্পর্শ করেছে। নিজের দেশের প্রতিনিধিত্ব করার অর্থ কি অন্য যে কোনো সময়ের চেয়ে আমি এটা গত কয়েক দিনে বেশি পেরেছি। ”

নিষেধাজ্ঞার শাস্তি পাওয়ার কিছু দিন আগে সাকিবের নেতৃত্বে ধর্মঘটে গিয়েছিল ক্রিকেটাররা। বিসিবি দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাসের পর সাকিবের ঘোষণায় মাঠে ফেরেন ক্রিকেটাররা।

অনেকে আইসিসির নিষেধাজ্ঞার পেছনে বিসিবির হাত দেখছেন। সরাসরি না বললেও এই ঘটনায় যে দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার কোনো হাত নেই তা স্পষ্ট করেছেন।

“আমি আমার সব সমর্থককে যারা আমার ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞায় ক্ষুব্ধ আমি তাদের শান্ত থাকার ও ধৈর্য ধরার জানাচ্ছি।”

“আমি আপনাদের এটা পরিষ্কার করতে চাই যে, আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী ইউনিটের গোটা তদন্ত ছিল।। নিষেধাজ্ঞার ঘোষণার অল্প কিছু দিন আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এটা আমার কাছ থেকে জানতে পারে। ”

চারপাশে অনেক কথা হচ্ছে। সে সবে মন দিতে মানা সাকিবের। স্পষ্ট করে জানিয়েছেন, কঠিন সময় পার করে আগামী বছর ফিরতে চান মাঠে। খেলতে চান লাল-সবুজ জার্সি পরে।

“আমি বুঝতে পারছি কেন অনেক মানুষ আমাকে সহায়তার প্রস্তাব দিচ্ছে। আমি এটা খুব অ্যাপ্রিশিয়েট করছি। হোক হোক এখানে একটি প্রক্রিয়া আছে। আমি আমার ওপর দেওয়া নিষেধাজ্ঞা মেনে নিয়েছি কারণ, আমি মনে করি এটাই ছিল সঠিক কাজ। ”

“এখন আমার সম্পূর্ণ মনোযোগ ক্রিকেট মাঠে ফেরা ও ২০২০ সালে বাংলাদেশের হয়ে খেলার দিকে নিবন্ধ। এর আগ পর্যন্ত আপনারা আমাকে আপনাদের প্রার্থনা ও হৃদয়ে রাখুন। ”

সাকিবকে মোট দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি, যার মধ্যে এক বছরের শাস্তি স্থগিত। প্রথম এক বছরে নতুন করে কোনো আইন না ভাঙলে পরবর্তী এক বছরের শাস্তি থেকে তিনি রেহাই। সেক্ষেত্রে ২০২০ সালের ২৯ অক্টোবরের পর আবার মাঠে ফেরার সুযোগ পাবেন বাংলাদেশের সেরা ক্রিকেটার।


Source link